ভেবেছিলাম জিবন টা হয়তো এখানেই শেষ

ভেবেছিলাম জিবন টা হয়তো এখানেই শেষ

আলহামদুলিল্লাহ,

সমস্ত প্রসংশা একমাত্র আল্লাহর জন্য।

সর্ব প্রথম ক্ষ্মমা চেয়ে নিচ্ছি এ ধরনের পোষ্ট এখানে শেয়ার করার জন্য ।

কিন্ত এ পোষ্টটি আপনার জিবনকে বদলে দিতে পারে।

আমি Cumillar সন্তান .

আমি ছোট বেলা থেকেই পড়া শোনার প্রতি খুব মনোযোগি ছিলাম , সব সময় ভালো রেসাল্ট করেছি ।

কিন্ত মধ্যবর্তী পরিবারের সন্তান বলে আমি ততোটা support পাইনি ।

সব সময় টিউশনি করে পড়াশোনা করেছি ।

অনেক সপ্ন নিয়ে লাকসাম ফয়েজুন্নেছা কলেজে ভর্তি হয়েছিলাম , কিন্তু ভাগ্যের পরিনাম টাকার অভাবে আর পড়তে পারিনি ।

ভেবেছিলাম জিবন টা হয়তো এখানেই শেষ , হয়তো আর সপ্নগুলো পুরন হবেনা ।

কিন্তু আমি থেমে যাইনি , আমার মাঝে হেরে যাওয়ার মানেই সাফল্যের সন্ধান খুজে পাওয়া ।

অনেক ভাবলাম জিবনে কিছু না কিছু করতেই হবে ,তাই ঘুরে দাড়ালাম আবার ।

চিন্তা করতে লাগলাম সার্টিপিকেট ছাড়া জিবনটা কোথায় সাজানো যায়, কারন আমাদের বাংলাদেশ তো সার্টিপিকেট ছাড়া কিছুই চায়না ।

অনেক কষ্টে Graphics Design শিখেছি।

Fiverr একাউন্ট খুলেছিলাম ফেব্রুয়ারির ঠিক ২০ তারিখ।

আজ 4 মাস হয়েছে, আল্লাহর অশেষ মেহের বানীতে এরি মাঝে

100+ Order complete করেছি , ১৬ টা দেশের ৬০ টা ক্লাইন্টের সাথে কাজ করছি ।

82 Review 4.9 Ratting ..

level two sallaer .

আর্ন করেছি 3000$+ ।

এবং বর্তমান মাসিক ইনকাম 1000$+ যা বাংলার প্রায় ৮০ হাজারের উপরে ।

আর আমি সব টাকাই ইনকাম করেছি ঘরে বসেই ।

একটা জিনিষ ভাবেন আপনি জিবনে কি করেছেন ?
শুদু বন্দু বান্দব নিয়েই সময় কাটছে আপনার ।
অথচ আপনার হাটু সমান বয়সের ছেলেরাই ফ্রীল্যান্সিং করে হাজার হাজার ডলার ইনকাম করছে ।

আপনি আমি তো এসবের খুজই রাখিনা ,আর দিন শেষে বলি বাংলায় অনার্স পড়েও চাকুরী নাই ।

বেকার আর বেকার !

সব শেষে বাবার কষ্ট অর্জিত টাকা দিয়ে মাস্টার্স পাশ ছেলে হয়ে পারি জমান প্রভাসে !

আপনাদের জন্য তেমন কিছুই করার নাই , তবে আমি চাইলে ঘরে বসে বসে এবাবে ইনকাম করে যেতেই পারি ।

কিন্ত না আমি কিছু পরিশ্রমিক মেধাবী ছাত্রের পাশে দারাতে চাই ।

আমি আমার অফিস নিয়েছি ,ইতি মদ্যেই আমাদের এলাকার অনেকই আমাকে দেখে কম্পিউটার নিয়ে নিছে ,

তাদের সহ কিছু সংখক ছাত্র কে ফ্রীল্যান্সিং ও আইটসোসিং শিখাবো ,জাষ্ট সামান্য ফী নিয়ে যাতে কাজের প্রতি অবহেলা না ঝমে ।

সব শেষে এটাই বলবো বাবা-মায়ের টাকায় পড়া-শোনা না করে নিজে কিছু করার ট্রাই করুন ।

সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যেন আরো বহুদুর যেতে পারি ।

 

লেখকঃ Shahadat Hossain Sojib

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *